হাবিপ্রবিতে প্রথমবারের মতো রবীন্দ্র জয়ন্তী পালন

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) হাবিপ্রবি শিল্প ও সাহিত্য সমিতির উদ্যোগে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রবীন্দ্র জয়ন্তী উদযাপিত হয়েছে।

শনিবার(১২ মে) বিকেল ৫টায় টিএসসি চত্বরে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা শাখার পরিচালক অধ্যাপক ড. শ্রীপতি শিকদার ও হিসাব শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. শাহাদৎ হোসেন খান।

অনুষ্ঠানে হাবিপ্রবি শিল্প ও সাহিত্য সমিতির সভাপতি এবং ভেটেরিনারি চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী কৈলাস চন্দ্র রায় বলেন, দেশীয় সুস্থ ধারার সাংস্কৃতিক চর্চা মানুষের সামাজিক ও মানবিক মূল্যবোধ গঠনে সহায়ক ভূমিকা রাখে আর এ সংগঠনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা গল্প, কবিতা, গান, নাচ ,অভিনয়, অংকন, ফটোগ্রাফি ইত্যাদির মাধ্যমে খুব সহজেই তাদের সৃজনশীল চিন্তার প্রতিফলন ঘটাতে সক্ষম হন।

আলোচনা সভা শেষে শুরু হয় অনুষ্ঠানের মূল অংশ সাংস্কৃতিক পর্ব ‘ঐকতান’ ভেটেরিনারি অনুষদের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী প্রান্ত সরকারের প্রাণ জুড়ানো বাশিঁর সুরে। এরপর একে একে কবিতা আবৃত্তি, গান, নাচ, নাটক ও রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জীবনী এবং শিল্প বিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়। পুরো অনুষ্ঠান পরিচালনায় দায়িত্বে ছিলেন হাবিপ্রবি শিল্প ও সাহিত্য সমিতির উপদেষ্টা ডা. পবিত্র মোহন্ত।

উল্লেখ্য, রবীন্দ্র জয়ন্তী ৮ মে হবার কথা থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র কৃষিবিদ সোহরাব হোসেন সজলের মৃত্যুশোকে তা পিছিয়ে শনিবার (১২ মে) করা হয়।