হবিগঞ্জ বিএনপির গণঅনশন কর্মসূচি

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে গণঅনশন কর্মসূচী পালন করেছে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপি। সোমবার (৯ জুলাই) শহরের পৌরমঞ্চে দিনব্যাপী এই কর্মসূচী পালন করা হয়।

গণঅনশন কর্মসূচী পালনকালে বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মেয়র জি কে গউছ বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় কারাগারে রাখা হয়েছে। এখন তার জামিন নিয়েও তালবাহানা চলছে। একটি পরিত্যক্ত নির্জন কারাগারে আটক রেখে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে। এই অবস্থা আর বেশি দিন চলতে দেয়া হবে না। শীঘ্রই গণআন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্রের মা বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে।’

মানুষ ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে উল্লেখ করে মেয়র বলেন, ‘ মানুষের জান মালের নিরাপত্তা নেই, আইনের শাসন নেই, বাক-স্বাধীনতা নেই। বাংলাদেশের মানুষ খুব ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। এই ফ্যাসিষ্ট আওয়ামীলীগ সরকারের বিরুদ্ধে কথা বললেই আইন শৃংখলা বাহিনী দিয়ে মানুষের কন্ঠরোধের চেষ্টা করা হয়। দেশের মেধাবী ছাত্ররা তাদের ন্যায্য দাবী দিয়ে মাঠে নেমেছে, অথচ তাদেরকে আজ পুলিশ আর ছাত্রলীগের হামলার শিকার হতে হচ্ছে। রাস্তায় কোটা আন্দোলনকারীদের পিঠানো হচ্ছে। একটি গণতান্ত্রিক দেশে সরকারের এমন আচরণ হতে পারে না। এ জন্য প্রয়োজন একটি গণআন্দোলন। দেশবাসী সেই গণআন্দোলনের মাধ্যমেই এই ফ্যাসিষ্ট আওয়ামীলীগ সরকারকে বিদায় জানাতে প্রস্তুত।

মেয়র জি কে গউছ বলেন, ‘স্বাধীনতার ৪৬ বছর পরও দেশের গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য আন্দোলন করতে হচ্ছে। সাবেক ৩ বারের প্রধানমন্ত্রীকে কারাগারে যেতে হচ্ছে। একটি জাতির জন্য এর চেয়ে লজ্জার বিষয় আর কিছু হতে পারে না।’

তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘বর্তমান সরকারের অপকর্মে মানুষ অতিষ্ঠ। এই সরকারকে বিদায় জানাতে দেশের মানুষ ব্যালটের অপেক্ষায় রয়েছে। এ জন্য আমাদেরকে জনগণের পাশে থাকতে হবে। সরকারের ব্যর্থতা এবং লাগামহীন দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরে জনমত গঠন করতে হবে। সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে সরকারকে বাধ্য করতে হবে। তাহলে এই সরকারের পতন নিশ্চিত হবে।’

গণঅনশন কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সফিকুর রহমান ফারছ, সহ সভাপতি এডভোকেট শামছু মিয়া চৌধুরী, এডভোকেট মঞ্জুর উদ্দিন আহমেদ শাহিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী ও এডভোকেট হাজী নুরুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ হাজী এনামুল হক, শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী বেলাল, হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির আহবায়ক আবুল হাশিম, শায়েস্তাগঞ্জ পৌর বিএনপির আহবায়ক ফরিদ আহমেদ ওলি, জেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এস এম বজলুর রহমার, জেলা বিএনপির বৃক্ষরোপন সম্পাদক নুরুল আনাম খান টিপু, দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ নাহিজ।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আজিজুর রহমার কাজল, পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক নুরুল ইসলাম নানু, জেলা বিএনপির সহ দপ্তর সম্পাদক মাহবুবুর রহমান আউয়াল, জেলা যুবদলের সভাপতি মিয়া মোঃ ইলিয়াছ, সাধারণ সম্পাদক জালাল আহমেদ, জেলা জাসাসের সভাপাতি মিজানুর রহমান চৌধুরী, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি এমদাদুল হক ইমরান, সাধারণ সম্পাদক রুবেল আহমেদ চৌধুরী, জেলা মহিলাদলের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট ফাতেমা ইয়াসমিন প্রমুখ।