হবিগঞ্জে ‘কুইজে একাত্তর’ শুরু ২৫ মার্চ

মুক্তিযুদ্ধকে জানতে এ একটি অনন্য উদ্যোগ : এম.পি আবু জাহির

মুক্তিযুদ্ধ আমাদের গরিমার ইতিহাসে এক চিরস্মরণীয় অধ্যায়। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ অর্জন। আর এই অর্জনকে তরুণদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে অনলাইন মাধ্যমে দেশব্যাপী মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক জ্ঞান অন্বেষণ প্রতিযোগিতা কুইজে একাত্তর আয়োজন করেছে প্রজেক্ট লন্ডন ১৯৭১।

সারাদেশে আগামী ২৫ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ ৭টি ধাপে ৭১টি প্রশ্ন নিয়ে ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত দুটি গ্রুপে অনুষ্ঠিত হবে এই প্রতিযোগিতা। ৭ মার্চ থেকে কুইজে একাত্তর এর ওয়েবসাইটে (www.quize71.com) রেজিস্ট্রেশন করছেন শিক্ষার্থীরা। দুটি বিভাগে পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হবে এক লাখ টাকার বই ও সার্টিফিকেট। উদ্যোগটিকে সামনে রেখে শুরু হয়েছে দেশব্যাপী শিক্ষার্থী সম্মিলন।

বুধবার (২১ মার্চ) সকাল ১০টায় হবিগঞ্জ হাইস্কুল এন্ড কলেজে কুইজে একাত্তর এর শিক্ষার্থী সম্মিলন অনুষ্ঠিত হয়। স্কুলের পাঠদান শুরুর প্রাক্কালে মাঠে জড়ো হন বিদ্যাপীঠের শিক্ষার্থীরা। হবিগঞ্জ জেলার শিক্ষার্থী সম্মিলনের উদ্বোধনী আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট মো. আবু জাহির, এম.পি।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই প্রজেক্ট লন্ডন ১৯৭১-এর কার্যক্রম সম্পর্কে জানান উদ্যোগটির সহযোগী সমন্বয়ক মো. বদরুল আলম। দেশব্যাপী কুইজে একাত্তর শিরোনামে উদ্যোগটি সম্পর্কের শিক্ষার্থীদের বিস্তারিত অবহিত করেন প্রজেক্ট লন্ডন ১৯৭১-এর উদ্যোক্তা ও প্রধান সমন্বয়কারী উজ্জ্বল দাশ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ হাইস্কুল এন্ড কলেজের সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুস সালাম ও সিনিয়র শিক্ষক জহুরুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মো. আবু জাহির, এম.পি বলেন, বাঙালি জাতির সবচেয়ে বড় অর্জন আমাদের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা, গৌরবের একাত্তর। আমাদের এই গৌরবময় মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করতে নানা প্রচেষ্টা এখনও চলমান। নতুন প্রজন্ম তাদের পূর্বসুরির বীরত্বগাঁথা সম্পর্কে জানতে আরও আগ্রহী হবে বলেই কুইজে একাত্তর এর মতো এই অনন্য আয়োজন। আমার বিশ্বাস প্রতিযোগিতামূলক এই আয়োজন দেশব্যাপী আমাদের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সাড়া ফেলবে এবং তাদের জানতে দেবে মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস।

প্রধান অতিথির করা কুইজের উত্তর দিয়ে প্ররস্কার জিতে নেয় স্কুলের পাঁচ শিক্ষার্থী। পুরস্কারে ছিল বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী এবং শহীদজায়া জাহানারা ইমামের একাত্তরের দিনগুলি। শিক্ষার্থীদের উচ্ছ্বাস আর তাৎক্ষণিক কুইজের উত্তর দেয়ার প্রচেষ্টা উপস্থিত সবাইকে বিমোহিত করে।

দেশব্যাপি কুইজে একাত্তর আয়োজনের সহযোগী হিসেবে রয়েছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, ট্রেজার ১৯৭১, হিমু পরিবহন, মুক্তআসর, বাংলাদেশ স্টাডি ট্রাস্ট ও মুক্তিযুদ্ধ-ই-আর্কাইভ।
উল্লে­খ্য, গত ৩ মার্চ মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘর মিলনায়তনে কুইজে একাত্তরের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা।