সিলেটে এআইসিসি সদস্যদের ২দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ শুরু

সিলেট অঞ্চলে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধিতে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির ব্যবহার শীর্ষক ২ দিনব্যাপী এআইসিসি সদস্যদের প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারী) কৃষি তথ্য সার্ভিস সিলেটের চন্ডীপুলস্হ সম্মেলন কক্ষে কৃষি তথ্য সার্ভিস, আঞ্চলিক কার্যালয়, সিলেট কর্তৃক আয়োজিত প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, সিলেট অঞ্চল, সিলেট এর অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ মো. মতিউজ্জামান।

কৃষি তথ্য সার্ভিস, সিলেট অঞ্চল, সিলেট এর আঞ্চলিক বেতার কৃষি অফিসার কৃষিবিদ ফাহমিদা আক্তারের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিবিদ মো. মতিউজ্জামান কৃষি তথ্য ও যোগাযেগ কেন্দ্রের সদস্যদের বলেন- সিলেট অঞ্চলে পতিত ও অনাবাদি প্রচুর পরিমাণে জমি রয়েছে এই জমিগুলো ব্যবহারের জন্য কৃষকদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে। আধুনিক প্রযুক্তি বা যন্ত্রপাতি ব্যবহারের ফলে কৃষির উৎপাদন দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এখন সবকিছুই আধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে চাষাবাদ (বীজ বপন, নিড়ানি, সার দেয়া, ফসল কাটা, মাড়াই, ঝাড়া ও প্যাকেটিং) করা হচ্ছে। এজন্য প্রশিক্ষণের প্রয়োজন। আপনারা এখান থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে নিজ নিজ কৃষি তথ্য ও যোগাযেগ কেন্দ্রের (এআইসিসি) মাধ্যমে আপনার এলাকার কৃষকদের মধ্যে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির ব্যবহার বিষয়ে প্রচার করবেন।

প্রশিক্ষণের মূল বিষয়বস্তু হলো-সিলেট অঞ্চলে পতিত জমি চাষের আওতায় আনয়নের আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার, কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও অ্যাপস এর পরিচিতি, বোরো মৌসুমে ধানের ব্লাস্ট রোগের লক্ষণ, ক্ষতিকারক পোকামকড় দমন ব্যবস্থাপনা, ধানের ক্ষতিকারক পোকামকড় দমন অম্লীয় মাটিতে ডলোচুন ব্যবহার, আধুনিক কৃষি যন্ত্রপাতির ব্যবহার, ভূ-উপরিস্থ পানি সংগ্রহ ও সেচ প্রযুক্তি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- এসআরডিআই সিলেটের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কৃষিবিদ ড. মো. এনায়েত উল্লাহ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, সিলেট এর জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার কৃষিবিদ দীপক কুমার দাস।

প্রশিক্ষণে সিলেট বিভাগের ১৫টি উপজেলার কৃষি তথ্য ও যোগাযোগ কেন্দ্রের (এআইসিসি) ৩০ জন সদস্য অংশগ্রহণ করেন।