শিশুদের ভিটামিন এ খাওয়ানোর আহ্বান সিসিক মেয়রের

জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন শুরু

শিশুদের ভিটামিন এ ক্যাপস্যুল খাওয়াতে সিলেট মহানগরের সকল শিশুদের কেন্দ্রে নিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

বুধবার (১৫ জুন) দুপুরে সিসিকে বর্ধিত এলাকা খাদিমপাড়া ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

এসময় তিনি একটি শিশুকে ভিটামিন এ খাইয়ে দিয়ে ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন।

এদিকে নগরের ধোপাদিঘীরপাড় এলাকায় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের বিনোদিনী সিটি দাতব্য চিকিৎসা কেন্দ্রে শিশুদের ভিটামিন এ খাইয়ে ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন করেন সিসিকে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও সরকারের অতিরিক্ত সচিব বিধায়ক রায় চৌধুরী।

এবার সিলেট মহানগরের বর্ধিত এলাকা সহ সিসিকের ৩৯ টি ওয়ার্ডে ৮৩ হাজার ৯ শ ৬৩ জনকে শিশুকে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনে ভিটামিন খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ৩৪৮ টি স্থায়ী ও অস্থায়ী কেন্দ্রে একযোগে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপিত হচ্ছে।

সিসিকে প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম জানান, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২২৩ টি ইপিআই টিকাদান কেন্দ্র, নিয়মিত কেন্দ্র ২০ টি, অস্থায়ী কেন্দ্র ৮২ টি এবং অতিরিক্ত কেন্দ্র ২৩ টি কেন্দ্রে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হচ্ছে। ৬ থেকে ১১ মাস এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের এ ক্যাম্পেইনে ভিটামিন এ খাওয়ানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, বৃষ্টির জন্য প্রথম দিন শিশুদের উপস্থিতি কম ছিল। আশা করি ১৯ জুন ২০২২ খ্রিস্টাব্দ চলমান ক্যাম্পেইনে ভিটামিন এ খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারবে সিসিক।

এ ক্যাম্পেইনে সিসিকের ৬৯৬ জন স্বেচ্ছাসেবী এবং ৩৯ জন সুপারভাইজার কাজ করবেন।