শাবিপ্রবিতে বঙ্গবন্ধুকে কটূক্তিকারী ঢাবি শিক্ষকের কুশপুত্তলিকা দাহ

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি ও স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃতিকারী ঢাবি শিক্ষক অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খান কে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বরখাস্ত করে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মিছিল-সমাবেশ ও কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) ছাত্রলীগ।

বুধবার (২৮ মার্চ) দুপুরে বিক্ষোভ মিছিলটি শাবিপ্রবি ক্যাম্পাসের বঙ্গবন্ধু চত্বর থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে লাইব্রেরির সামনে এসে সমাবেশে মিলিত হয়।

শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মো. রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ইমরান খানের সঞ্চালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন- সহ সভাপতি মোস্তাকিম আহমেদ মোস্তাক, তারিকুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা মুশফিকুর রহমান জিয়াসহ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

এসময় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. রুহুল আমিন বলেন, যারাএই স্বাধীন বাংলাদেশে বসবাস করে বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা করার দৃষ্টতা যারা দেখায়, তাদের এদেশে বসবাস করার অধিকার নেই। তিনি প্রধানমন্ত্রীর নিকট ঢাবি শিক্ষক মোর্শেদ হাসানের চাকুরিচ্যুতসহ বাংলাদেশের নাগরিকত্ব বাতিল করে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান।

গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে একটি জাতীয় দৈনিকে ‘জ্যোতির্ময় জিয়া’ শিরোনামে এক লেখায় বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা ও ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগ আনা হয় ঢাবি শিক্ষক অধ্যাপক মোর্শেদ হাসানের বিরুদ্ধে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপিপন্থী সাদা দলের যুগ্ম-আহ্বায়ক পদে আসীন রয়েছেন।