লাখাইয়ে কিশোরীকে গলা কেটে হত্যা

ছবি : প্রতীকী

লাখাই উপজেলার করাব ইউনিয়নের গুণীপুর গ্রামে ফাহিমা আক্তার (১৬) নামে এক কিশোরীর গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (০২ জুন) বিকেলে গুণীপুর গ্রামের নিজ ঘর থেকে ফাহিমার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত ফাহিমা গুণীপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলীর মেয়ে।

জানা গেছে- শনিবার দুপুরে ফাহিমার মা সহ পরিবারের লোকজন বাড়ির বাইরে যান। এ সময় ফাহিমা ঘরে রান্না করছিল। বিকেল ৪টার দিকে তার পরিবারের সদস্যরা ঘরের ভিতরে ঢুকে ফাহিমার গলাকাটা লাশ দেখতে পান।

খবর পেয়ে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। মো. রবিউল ইসলাম জানান, কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে তার পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

লাখাই থানার ওসি বজলার রহমান জানান, শনিবার দুপুরে ঘরে রান্না করছিল ফাহিমা। বিকেলে তার পরিবারের সদস্যরা ঘরের মধ্যে ফাহিমার গলাকাটা লাশ দেখে চিৎকার শুরু করেন। পরবর্তীতে পুলিশকে খবর দেয়া হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনের জন্য পুলিশ তার পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

তিনি বলেন- লাশ থানায় রয়েছে। রোববার সকালে ময়না তদন্তের জন্য লাশ হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হবে।