রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্টের বৈঠক

বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের তাদের দেশে ফেরত পাঠানোর অগ্রগতি পর্যবেক্ষণে এসে বাংলাদেশে এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেছেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস এবং বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। বৈঠকে রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের দায়িত্বশীল ভূমিকার প্রশংসা করেছেন তাঁরা।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাদের এই বৈঠক সম্পর্কে জাতিসংঘ মুখপাত্রের অফিসিয়াল টুইটার পোস্টে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস এবং বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রতি উদারতা দেখানোর জন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, রোহিঙ্গা সংকটে দায়িত্ব কেবল বাংলাদেশের নয়, বরং পুরো বিশ্বের।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস ও বিশ্ব ব্যাংক গ্রুপ প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম যৌথভাবে রোববার (১ জুলাই) সকাল ১১টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ২০৩০ টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা বিষয়ক একটি অধিবেশনে জাতিসংঘ মহাসচিবের যোগদানের কথা রয়েছে।

জানা গেছে, গুতেরেস প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর পরিদর্শনে যাবেন। এর পর বিকেলে রেডিসন হোটেলে বাংলাদেশে জাতিসংঘ ও বিশ্ব ব্যাংক কান্ট্রি টিমের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। পরে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে প্যান প্যাসেফিক সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত ভোজ সভায় যোগ দেবেন।

পরদিন সোমবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইটে কক্সবাজার যাবেন গুতেরেস। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, বিশ্ব ব্যাংক প্রেসিডেন্ট এবং রোহিঙ্গা বিষয়ক জাতিসংঘ হাইকমিশনার ফিলিপপো গ্রান্ডি জাতিসংঘ মহাসচিবের সঙ্গে থাকবেন। গুতেরেস কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন এবং সেখানে নারীদের সুযোগ-সুবিধার বিষয়গুলো পর্যবেক্ষণ করবেন। সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকায় ফিরে তার মিডিয়া ব্রিফিংয়ে যোগদানের কথা রয়েছে।

সোমবার রাত ১২টা ৪০ মিনিটে ঢাকা ত্যাগ করবেন জাতিসংঘ মহাসচিব।