রিফাতে পঁচা-বাসি খাদ্যপণ্য, ৮ লাখ টাকা জরিমানা

সিলেটের খাদ্যপণ্য প্রস্তুত ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান রিফাত এন্ড কোং এর কারখানায় পঁচা, বাসি, দুর্গন্ধযুক্ত ও পোকায় ধরা বিভিন্ন ধরণের খাদ্যপণ্য পেয়েছে র‍্যাব-৯ পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত। সাথে ছিল নোংরা ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশ। এসব অভিযোগে এবার ‘রিফাত এন্ড কোং’-কে ৮ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৯ মে) বেলা আড়াইটা থেকে সিলেট শহরতলির কুমারগাঁও বাসস্ট্যান্ড এলাকায় রিফাতের দুটি কারখানায় অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। প্রায় দেড় ঘন্টার অভিযানে খাবার অনুপযোগী তেল, ফ্রিজে পঁচা দুর্গন্ধযুক্ত মাংস, খাবার অনুপযোগী পোকায় ধরা ঘি, ডাল, পনির, পঁচা প্রোটিন খুুুুঁজে পায় র‌্যাবের অভিযানিক দল। এছাড়া অভিযানিক দল পার্শ্ববর্তী তাকওয়া কমপ্লেক্সে রিফাতের আরেকটি কারখানায় খাবার অনুপযোগী ময়দা, আটা, সেমাই তৈরীর সরঞ্জামও খুঁজে পায়। এ সময় রিফাতের কারখানায় ভয়াবহ ভেজালচিত্রে আঁতকে ওঠেন সবাই।

অভিযানকালে ভেজাল খাদ্যপণ্য রাখার দায়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৫২ ধারায় রিফাতের চেয়ারম্যান হাজী আফতাব মিয়া, ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল্লাহ সিদ্দিকী শুভ, পরিচালক (প্রশাসন) মঞ্জুর রাশেদ ও মহাব্যবস্থাপক আব্দুল্লাহ আজাদকে দেড় লাখ টাকা করে মোট ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া বিএসটিআই আইনে তাদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। জরিমানা অনাদায়ে প্রত্যেককে তিন মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান রিফাত এন্ড কোং-কে দুটি ধারায় এ জরিমানা করেন। অভিযানে র‌্যাব-৯ এর সিনিয়র সহকারি পরিচালক মো. মনিরুজ্জামানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।