রাজশাহীতে ভাইয়ের সামনে কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

প্রতীকি ছবি

রাজশাহীতে ছোট ভাইয়ের সামনেই ১৩ বছরের কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। নগরীর শিরোইল কলোনির কানারমোড় এলাকায় এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে চন্দ্রিমা থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- কানারমোড় এলাকার মৃত শাহিন ইকবালের ছেলে জাফর (৩০), একই এলাকার রবিন্দ্র দাশের ছেলে সাগর দাশ (২৬) ও জাহিদ হাসানের ছেলে রনি (২৩)।

ধর্ষণের ঘটনায় ওই কিশোরী বাদী হয়ে আরএমপি’র চন্দ্রিমা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে বলে জানায় পুলিশ।

চন্দ্রিমা থানা সূত্রে জানা গেছে, রোববার (২৯) ভোর ৪টার দিকে জাফর কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে রাজশাহী রেলস্টেশনে বসে থাকা ওই কিশোরীকে কানারমোড় এলাকায় তার বাড়িতে কাজ দেয়ার কথা বলে কৌশলে তুলে নিয়ে যায়।

বাড়িতে ওই কিশোরীর ছোট ভাইকে বেঁধে রেখে কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। সূত্র জানায়, জাফর প্রথমে কাঁচের বোতল দিয়ে মেয়েটির মাথায় ও পায়ে আঘাত করে। এরপর পাঁচজন মিলে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

ওই কিশোরীর বাড়ি ময়মনসিংহ শহরে। কাজের সন্ধানে সে ছোট ভাইকে সঙ্গে নিয়ে রাজশাহী যায়। রাত অনেক হয়ে যাওয়ায় স্টেশনে আশ্রয় নেয় তারা।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে চন্দ্রিমা থানার ওসি হুমায়ুন কবির মুঠোফোনে সিলেট ভয়েসকে বলেন, মেয়েটিকে ধর্ষণ করা হয়েছে। রাজশাহী মেডিকেল (রামেক) হাসপাতালে তার পরীক্ষা করা হয়েছে। এখনো রিপোর্ট পাওয়া যায় নি। তবে এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজন আসামিকে রোববার রাতে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদেরও গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে।

তিনি জানান, মেয়েটির কেউ নেই, বর্তমানে ওই মেয়েটি এবং তার ভাইকে থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে।