মহানবীকে কটূক্তির প্রতিবাদে কানাইঘাটে বিক্ষোভ মিছিল

ভারতে মহানবী (সা.)কে কটূক্তির প্রতিবাদে কানাইঘাটে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে জমিয়তে উলামা বাংলাদেশ।

শনিবার (১১ জুন) বিকেল ২টায় কানাইঘাট উত্তর বাজার পয়েন্টে জমিয়তে উলামা বাংলাদেশ কানাইঘাট উপজেলা শাখার আহ্বানে ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির মূখপাত্র নুপুর শর্মা ও গণমাধ্যম প্রধান নবীন কুমার জিন্দাল কর্তৃক মহানবী সা. এর শানে চরম কটূক্তি ও চরিত্র নিয়ে অশালীন মন্তব্যের প্রতিবাদে জমিয়তে উলামা কেন্দ্রীয় কমিটির প্রধান উপদেষ্টা আল্লামা মুহাম্মদ বিন ইদ্রিস শায়খে লক্ষিপুরীর সভাপতিত্বে ও জমিয়তে উলামা বাংলাদেশ কানাইঘাট উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ক্বারী মাও. হারুনুর রশীদ চতুলীর সার্বিক সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, জমিয়তে উলামা বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির আমীর আল্লামা আলিমুদ্দীন শায়খে দুর্লভপুরী।

তিনি আরো বলেন, নবী সা: এর উপর নুপুর শর্মার অভিযোগ একেবারেই অবান্তর কেননা মহানবী সা. এর বয়স যখন ২৫ বছর তখন তিনি ৪০ বৎসর বয়সী মহিলা হযরত খাদিজাতুল কুবরা রা. এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। হযরত আয়শা সিদ্দীকা রা. এর সাথে হুজুর সা. এর বিবাহ সম্পূর্ণ মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের ইচ্ছায় সম্পন্ন হয়েছিল। বার বার স্বপ্নে হুজুর সা. কে হযরত আয়শা রা. কে দেখানো হয়েছিল। আর হুজুর সা. স্বপ্ন সবকটিই ওহী ছিল।

তিনি আরোও বলেন, হযরত আয়শা সিদ্দীকা রা. কে হুজুর সা.এর ঘরে উপযুক্ত হওয়ার পর দেয়া হয়েছিল।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জমিয়তে উলামা বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাকালীন মহাসচিব বর্তমান সহ-সভাপতি আল্লামা শামসুদ্দীন দুর্লভপুরী, কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব মাওলানা আবুল হোসাইন চতুলী, ২নং লক্ষিপ্রসাদ পশ্চিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা জামাল উদ্দিন প্রমুখ।

প্রতিবাদ সমাবেশে আগামী বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) বিকাল ২ টায় জৈন্তাপুর অভিমুখে সিলেটের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে গণমিছিল সহকারে জৈন্তাপুর বাজারে ঐতিহাসিক প্রতিবাদ মহা-সমাবেশ করার ঘোষণা দেয়া হয়।