মঞ্চস্থ হলো নাট্যমঞ্চ’র নাটক ‘বধ্যভূমিতে শেষ দৃশ্য’

নাটক ‘বধ্যভূমিতে শেষ দৃশ্য’ এর একটি মুহূর্ত

সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেট আয়োজিত মহান একুশের আলোকে নাট্য প্রদর্শনীর তৃতীয় দিন (২৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে মঞ্চস্থ হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপট নিয়ে রচিত নাটক ‘বধ্যভূমিতে শেষ দৃশ্য’। নাট্যমঞ্চ সিলেট এর প্রযোজনায় নাটকটি রচনা করেছেন কাজী মাহমুদুর রহমান ও নির্দেশনা দিয়েছেন রজত কান্তি গুপ্ত।

নাটকটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন কনক আচার্য্য, স্বর্ণা ব্যানার্জী ও সাহিদা বিনতে হাসান, রজতকান্তি গুপ্ত, মরিয়ম নুসরাত টুম্পা, মুহিতুর রহমান রনি, ইয়ামিন ওসমান, অনুভব বাপ্পু, মাহমুদ হাসান, বাপ্পি কুমার মজুমদার, ইমরান ওসমান, কাজী শফিউল আলম ইমন, এ.এম. মামুন-অর-রাফি, জান্নাতুল নওশীন আভা, জাহিদ হাসান শুভ, কাজী মুহাম্মদ শাহজাহান, আবু জাহিদ ভূঁইয়া, মো. শফিকুল ইসলাম, শরিফ উদ্দিন, জয়নাল আহমেদ, আব্দুল আজিজ, মনজুর রহমান মো. তামজিদ, এস.এম সাদিক, খোশনুর আক্তার মৌমী, তাহেরা বেগম চৌধুরী, মাহমুদুল হাসান খাঁন মাহী, আবু কায়সার, মাহদি হাসান ও শাহ তাহমিন সাকিব প্রমুখ।

নাটকের সার সংক্ষেপ : বধ্যভূমিতে শেষদৃশ্য নাটকটিতে একাত্তরে যুদ্ধবিদ্ধস্ত বাংলাদেশের শত সহস্র বধ্যভূমির কথা বলা হয়েছে। নাটকে ফুটে উঠেছে গল্লামারী বধ্যভূমির নৃশংসতার চিত্র। যা নিরস্ত্র মুক্তিকামী বাঙালীর উপর পাকিস্তানীদের বর্বরতার একটি চিত্রপট। কাহিনীর চরিত্র কিংবা পাত্র-পাত্রি শুধুমাত্র কল্পনাবিলাসের জন্য নয়, ওরা ছিল একাত্তরের যুদ্ধ সময়ের ঘটনার প্রতিচ্ছবি।

বর্বর পাকসেনারা কিভাবে নির্যাতন চালিয়ে কয়েকজন মানুষের স্বপ্ন ও মুক্তির চিন্তাকে হত্যা করে তা নাটকে ফুটে উঠেছে। নাটকে নৃশংসতায় অন্ধ বন্দি সুজা অন্য বন্দিদের মাঝে খুঁজে পায় তার স্বপ্নের মেয়েটিকে। যাকে সে বিদেশে থাকাকালীন সময়ে মায়ের পাঠানো ছবিতে দেখেছিল। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিণতি গল্লামারী বধ্যভূমিতে তার স্বপ্নের সেই মেয়েটি তাঁর কাছে অন্যদের মতই বন্দি, সে তাকে দেখতে পারছে না। বন্দি মেয়েটিকে তাঁর স্বপ্ন আর মেয়েটি নিয়ে মায়ের পাঠানো ছবির কল্পনার কথা বলতে গিয়ে শেষ মূহুর্তে জানতে পারে তাঁর সমস্ত ভালবাসা, বন্দি মেয়েটিকে নিয়ে। পাকিস্তানি সুবেদারের কুট কৌশলে নাটকের এক পর্যায়ে সকল বন্দিদের ছেড়ে দেওয়ার শর্ত দেওয়া হয়, এই বলে যদি বন্দি সুজা নিজের হাতে তার স্বপ্নের মেয়েটিকে হত্যা করে। সুজা শর্তে রাজি না হলেও মেয়েটি তার জীবনের লজ্জা, ঘৃণা ও অপমানের কথা সুজাকে স্মরণ করিয়ে দেয় এবং বলে সে এই নরপশু নয়, সুজার হাতেই নিজের জীবনের মুক্তি চায়। শেষ দৃশ্যে সুজা পাকিস্তানি সুবেদারের কুট কৌশলের প্রতিশোধ নেয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অন্যান্য বর্বর পাকসেনারা সুজাসহ সকলকেই হত্যা করে গল্লামারিতে। এরকম মুক্তিযুদ্ধের সময়ে ভয়াবহ দিনগুলোকে ‘বধ্যভূমিতে শেষ দৃশ্য’ নাটকের মধ্য দিয়ে স্মরণ করিয়ে দেয়।

কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে বারো দিনব্যাপী শুরু হওয়া নাট্য প্রদর্শনী চলবে আগামী ৫ মার্চ পর্যন্ত। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায় নাটক মঞ্চস্থ হবে। আজ ২৫ ফেব্রুয়ারি রবিবার নান্দিক নাট্যদল সিলেট মঞ্চস্থ করবে নাটক ‘হাসনরাজা’। নাটকটি রচনা করেছেন মোস্তাক আহমদ ও নির্দেশনা দিয়েছেন আমিরুল ইসলাম বাবু। নাট্য প্রদর্শনীতে মঞ্চস্থ নাটক সমূহ উপভোগ করার জন্য সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সভাপতি মিশফাক আহমেদ মিশু ও সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত সবাইকে আমন্ত্রন জানিয়েছেন।