ভটভটির চাপায় পা হারানোর ৫ ঘণ্টা পর কিশোরের মৃত্যু

নওগাঁয় ভটভটির চাপায় পা হারানোর পাঁচ ঘণ্টা পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে কিশোর নিলয় (১৪)।

শুক্রবার (৪ মে) বিকেলে শহরের ফতেপুর এলাকায় বাইপাস সড়কে ভটভটির সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে পা হারায় নিলয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে নয়টার দিকে নিলয় মারা যায়।

নিলয়ের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন নওগাঁ সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন।

আহত নিলয় শহরের মাস্টারপাড়া মহল্লার আফতাব হোসেনের ছেলে ও নওগাঁ কেডি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র।

একই দুর্ঘটনায় রাকিব হোসেন (১৫) ও সাদমান হোসেন (১৫) নামে আরও দুই কিশোর গুরুতর আহত হয়েছে।

ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে নিলয়সহ তিন বন্ধু মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরতে বের হয়। শহরের বাইপাস ব্রিজ এলাকা থেকে শান্তাহারের দিকে যাবার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ভটভটি তাদের মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে তারা সড়কে ছিটকে পড়ে। এ সময় নিলয়ের ডান পা ভটভটির চাপায় বিচ্ছিন্ন হয়। আর অন্য দুইজন গুরুতর আহত হয়।

দুর্ঘটনার পর স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য নিলয়কে রাজশাহীতে স্থানান্তর করেন। পুলিশ মোটরসাইকেল ও ভটভটি জব্দ করেছে।