ফিফার সেরা তালিকায় মেসি-রোনালদো, নেই নেইমার

ফিফার সেরা খেলোয়াড়ের সংক্ষিপ্ত তালিকায় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসি ও কিলিয়ান এমবাপে থাকলেও বাদ পড়েছেন নেইমার ও পল পগবা।

গত বছর এই তালিকায় শেষ পর্যন্ত তৃতীয় স্থানে ছিলেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। বার্সেলোনা ছাড়ার পরে প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইর হয়ে তিনটি ঘরোয়া শিরোপা দখল করার পরেও এবার আর নেইমারের স্থান হয়নি ফেবারিটের তালিকায়।

অন্যদিকে ২০ বছর পরে প্রথমবার বিশ্বকাপের শিরোপা ঘরে তোলা ফ্রান্সের হয়ে পগবা খেললেও এই তালিকায় তিনি আসতে পারেননি। অথচ তার জাতীয় দলের সতীর্থ এমবাপে, এন্টোনিও গ্রিজম্যান ও রাফায়েল ভারানে ঠিকই জায়গা করে নিয়েছেন। এই তালিকায় একমাত্র ডিফেন্ডার হিসেবে স্থান পেয়েছেন ভারানে। তার সাথে আরো আছেন বিশ্বকাপের গোল্ডেন বল বিজয়ী রিয়াল মাদ্রিদের সতীর্থ লুকা মড্রিচ।

লিভারপুলের হয়ে দুর্দান্ত এক মৌসুম শেষ করা মিশরীয় ফরোয়ার্ড মোহামেদ সালাহও আছেন এমবাপে, রোনালদো, মেসিদের সাথে। এই তালিকায় আরো আছেন প্রিমিয়ার লিগের তারকা এডেন হ্যাজার্ড, কেভিন ডি ব্রুইন ও হ্যারি কেন।

ফিফার বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের এই পুরস্কার প্রবর্তন হবার পরে দুই বছরই তা অর্জন করেছেন রোনালদো। আর মেসি দু’বারই হয়েছে রানার্স-আপ। খেলোয়াড়, কোচ, সমর্থক ও গণমাধ্যমকর্মীরা ভোট দিয়ে তাদের সেরা খেলোয়াড়কে বেছে নেয়। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর লন্ডনে অনুষ্ঠিত আড়ম্বরপূর্ণ এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিজয়ীর হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে।

ফিফা সেরা খেলোয়াড়ের সংক্ষিপ্ত তালিকা :

এন্টোনিও গ্রিজম্যান (এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ এবং ফ্রান্স)

এডেন হ্যাজার্ড (চেলসি ও বেলজিয়াম)

হ্যারি কেন (টটেনহ্যাম ও ইংল্যান্ড)

কিলিয়ান এমবাপে (পিএসজি ও ফ্রান্স)

লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা ও আর্জেন্টিনা)

লুকা মড্রিচ (রিয়াল মাদ্রিদ ও ক্রোয়েশিয়া)

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (রিয়াল মাদ্রিদ ও পর্তুগাল)

কেভিন ডি ব্রুইন (ম্যানচেস্টার সিটি ও বেলজিয়াম)

মোহামেদ সালাহ (লিভারপুল ও মিশর)

রাফায়েল ভারানে (রিয়াল মাদ্রিদ ও ফ্রান্স)