পুলিশী বাধায় বিএনপির ১ ঘণ্টার কর্মসূচি ১০ মিনিটেই শেষ

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের বাধায় বিএনপির ১ ঘণ্টার কর্মসূচি মাত্র ১০ মিনিটেই শেষ হয়ে গেছে।

দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার (০৮ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপির পূর্বঘোষিত এ অবস্থান কর্মসূচি সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১২ পর্যন্ত করার কথা ছিল। অবস্থান কর্মসূচিটি সকাল ১১ টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও শুরু হয় ১০ টা ৪০ মিনিটে। শুরুর ১০ মিনিটের মাথায় কর্মসূচিতে বাধা দেয় পুলিশ। পুলিশি বাধার মুখে তাদের অবস্থান কর্মসূচি পণ্ড হয়ে যায়। এসময় কর্মসূচির ভেতর থেকেই আটক করা হয় ছাত্রদলের ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি মিজানুর রহমান রাজসহ ৩ জনকে।

পরে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বারবার এমন পুলিশি বাধার ধিক্কার ও নিন্দা জানাই। সেসময় সরকারের পদত্যাগও দাবি করেন ফখরুল।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, দেশে সঙ্কট চলছে। এ সঙ্কট দূর করতে আগামী ডিসেম্বরে যে নির্বাচন, সেই নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বর্তমান সরকারের অপশাসনের অবসান ঘটাতে পারলে দেশের মানুষ মুক্ত হবে। আগামী নির্বাচনে আগে বিএনপি ও ২০ দল ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে নামলে অবস্থার পরিবর্তন ঘটবে বলে মনে করেন তিনি।

অবস্থান কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সকাল ১০ টা থেকেই দলের নেতাকর্মীরা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জমায়েত হতে থাকেন। অপরদিকে বিএনপির কর্মসূচিকে ঘিরে প্রেসক্লাবের সামনে কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তুলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। পাশাপাশি সাদা পোশাকধারী আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থায় সদস্যদের মোতায়েন করা হয়। এছাড়া কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সিডাপ মিলনায়তনের সামনে প্রিজন ভ্যান এবং সচিবালয়ের পাশে জল কামান ও সাঁজোয়া গাড়ি রাখা হয়।

কর্মসূচিতে বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, আব্দুস সালাম, জয়নুল আবেদীন ফারুক, এজেডএম জাহিদ হোসেন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, শামীমুর রহমান শামীম, মহিলা দলের নেত্রী আফরোজা আব্বাস, ছাত্রদল নেতা মামুনুর রশিদ মামুনসহ ২০ দলীয় জোটের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ৪ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার ঢাকাসহ সারাদেশে অবস্থান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে। অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা করে বিএনপি।