পুরস্কৃত হলেন মানবিকতা দেখানো সেই নারী এসআই

মানবিক কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছেন পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শবনম সুলতানা। তাঁর হাতে পুরস্কার তুলে দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

সোমবার (৭ মে) পুলিশ সদর দপ্তরে শবনম সুলতানার হাতে আর্থিক পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

এসময় আইজিপি বলেন, শবনম সুলতানা নিজ উদ্যোগে দুর্ঘটনাকবলিত পিকআপ ভ্যানের চালককে উদ্ধার করে ট্রাফিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার ক্ষেত্রে যে নৈপুণ্য দেখিয়েছেন, তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। তিনি নিজে আহত গাড়িচালককে সেবা দিয়ে মানবিক সেবার অনন্য নজির স্থাপন করেছেন। তাঁর এ মানবিক উদ্যোগের ফলে জনমনে পুলিশের ইতিবাচক ভাবমূর্তি বেড়েছে।

আইজিপির কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণের পর শবনম বলেন, “আমার চাকরি জীবনে কখনও আইজিপি স্যারদের সঙ্গে এভাবে কথা বলার সুযোগ হয়নি। আর আজকে আমার জন্যই সব আয়োজন। এজন্য আমি পুলিশ বাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞ। আজকে আমার মনে হয়েছে, পুলিশে প্রবেশ করে আমি সঠিক সিদ্ধান্তই নিয়েছিলাম। আইজিপি স্যার আমাকে দোয়া করেছেন। অনেক পরামর্শ দিয়েছেন। ভালো কাজ করার সাহস জুগিয়েছেন।”

কোনও কাজই ছোট না উল্লেখ করে শবনম বলেন, “আমি প্রশংসার জন্য কোনও কাজ করিনি। আমার পরিবারও এমন কাজে অবাক হয়নি। কারণ পারিবারিক পরিমণ্ডলে আমি এমনই। সবাই তা জানে। তবে পুরস্কার ভালো কাজের আরও দায় বাড়িয়ে দেয়। আমি যতদিন বেঁচে থাকবো, এভাবে ভালো কাজ করে যেতে চাই।”

উল্লেখ্য, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও থানার উপপরিদর্শক শবনম সুলতানা গত ২২ এপ্রিল রাজধানীর শাহীনবাগ এলাকায় দায়িত্ব পালন করছিলেন। তিনি বেতারবার্তার মাধ্যমে সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে সিভিল এভিয়েশন স্কুলের সামনের সড়কে ছুটে যান। তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুর্ঘটনাকবলিত পিকআপ ভ্যানের আহত চালককে উদ্ধার করেন এবং নিজে দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি চালিয়ে তা সড়ক থেকে সরিয়ে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করেন।

তাঁর এমন কর্মকাণ্ডের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। ছবি দেখে অনেকেই এই মানবিক পুলিশ কর্মকর্তার প্রশংসা করেন।