পাকিস্তানের বিপক্ষে স্কটিশদের হার

এডিনবার্গে দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৪৮ রানে হেরে গেছে স্বাগতিক স্কটল্যান্ড। শুরুটা খারাপ হলেও শেষ পর্যন্ত নিজেদের জাত ঠিকই চিনেয়েছে পাকিস্তান। টি-টোয়েন্টিতে তারা কেন এক নম্বরে সেটাও বুঝিয়ে দিয়েছে স্কটল্যান্ডকে।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভার খেলে ৪ উইকেট হারিয়ে টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০৪ রান তোলে পাকিস্তান। জবাবে ৬ উইকেটে ১৫৬ রান তোলে স্কটিশরা। পাকিস্তানের শুরুটা অবশ্য খুব একটা ভালো হয়নি। উদ্বোধনী দুই ব্যাটসম্যান আউট হন তাড়াতাড়ি। ১৫ বলে ২১ রান করে ফেরেন ফখর জামান। শেহজাদ ফেরেন ১২ বলে ১৪ রান করে। দুজনই অ্যালাসডায়ার ইভান্সের শিকার হন। এরপর ক্রিজে আসা হুসাইন তালাতও ইনিংস বড় করতে পারেননি। ১৬ বলে ১৮ রান করে তিনিও বিদায় নেন।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে সরফরাজ ও মালিক স্কটিশ বোলারদের ‘থোড়াই কেয়ার’ করেন। ৪৯ বলে ৯৬ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকে এই জুটি। ঝড়ের শুরুটা হয় মালিকের ব্যাট থেকে। ২৭ বলে ৫৩ রানের মারকুটে ইনিংস খেলেন চিরসবুজ শোয়েব মালিক। ৫৩ রানের মধ্যে ছক্কা ছিল ৫টি। সরফরাজ শুরুতে সিঙ্গেলস নিয়ে রয়েসয়ে খেলেন। তার ব্যাটে ঝড় ওঠে শেষের দিকে এসে। শেষের ২০ বলে-ই তোলেন ৫৪ রান। সরফরাজের ব্যাট থেকে ১০ চার ৩ ছক্কায় আসে ৮৯ রান। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকা পাকিস্তানের অধিনায়ক সব মিলিয়ে খরচ করেন ৪৯ বল। পাকিস্তান বুঝিয়ে দিল টি-টোয়েন্টিতে তারা কেন সেরা।

শুরুর ধাক্কা সামলে উঠতে পাকিস্তানের একটু সময় লাগে। নিজেদের ফিরে পেতে কিংবা ক্রিজে থিতু হতে পাকিস্তান একটু সময় নেয় বললেও ভুল হবে না নিশ্চয়! শেষ ৫ ওভারে পাকিস্তান রান তোলে ৮০।
মালিক ও সরফরাজের তাণ্ডবের মধ্যেও স্কটিশদের প্রাপ্তি পেসার ইভান্সের দুর্দান্ত বোলিং। ৪ ওভার বল করে এই পেসার তুলে নিয়েছেন ৩ উইকেট। দিয়েছেন মাত্র ২৩ রান।

জবাব দিতে নেমে বরং স্কটিশদের শুরুটা হয়েছিল দুর্দান্ত। প্রথম ৫ ওভারে কোয়েটজার ও মানজি মিলে তোলেন ৫৩ রান। পেসার হাসান আলী ২৫ করা মানজিকে না ফেরালে অন্য কিছু হলেও হতে পারত। তিন নম্বরে নামা বেরিংটন খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। শাদাব খানের বলে বোল্ড হয়ে ফেরার আগে মাত্র ৩ রান করেন এই ব্যাটসম্যান। ১৮ বলে ৩১ রান করে মোহাম্মদ নওয়াজের শিকার হয়ে ফিরে যান অধিনায়ক কোয়েটজারও। কোয়েটজার আউট হলে পথ হারিয়ে ফেলে স্কটিশরা। পরের ব্যাটসম্যানরা আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকলেও স্কটিশ মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান মাইকেল লিস্ক ২৪ বলে ৩৮ রান করে অপরাজিত থাকেন।