পরিসংখ্যানে আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া

মঙ্গলবার (২৬ জুন) রাতে রাশিয়া বিশ্বকাপের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সুপার ঈগল খ্যাত আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়ার মুখোমুখি হবে দু’বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। খেলাটি শুরু হবে সেন্ট পিটার্সবার্গে রাত ১২টায়।

ম্যাচটি আর্জেন্টিনার জন্য বাঁচা-মরার লড়াই। আজ জিতলে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার পথে থাকবে তারা। তবে একই সময়ে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে খেলবে আইসল্যান্ড। সে ম্যাচে যদি ক্রোয়েটরা আইসল্যান্ডকে হারিয়ে দেয়, তাহলেই আর্জেন্টিনা কোয়ালিফাই করবে দ্বিতীয় রাউন্ডে।

আর ক্রোয়েটরা যদি আইসল্যান্ডের সঙ্গে ড্র করে এবং আর্জেন্টিনা যদি নাইজেরিয়ার সঙ্গে ড্র করে, তাহলে ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে দ্বিতীয় দল হিসেবে কোয়ালিফাই করবে নাইজেরিয়া। অন্যদিকে, আর্জেন্টিনা ও আইসল্যান্ড জয় পেলে গোলের গড় হিসেবে যারা এগিয়ে থাকবে, তারাই যাবে দ্বিতীয় রাউন্ডে।

আর নাইজেরিয়া যদি আর্জেন্টিনাকে পরাজিত করে, তাহলে আইসল্যান্ড ক্রোয়েশিয়াকে পরাজিত করলেও কোনও কাজে আসবে না। সেক্ষেত্রে এই গ্রুপ থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠে যাবে নাইজেরিয়া।

এমন সমীকরণের মাঝেই আজ মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া। তবে বিশ্বকাপের পরিসংখ্যান নাইজেরিয়ার জন্য সুখকর না। বিশ্বকাপে তারা এ পর্যন্ত চারবার মুখোমুখি হয়েছে আলবিসেলেস্তেদের। চারবারের দেখায় চারবারই পরাজয়বরণ করেছে আফ্রিকার দেশটি।

১৯৯৪ সালে যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বকাপে দু’দল প্রথম মুখোমুখি হয় গ্রুপ পর্বে। সে ম্যাচে ক্লদিও ক্যানিজিয়ার জোড়া গোলে জয়ী হয় আকাশি-সাদা জার্সিধারীরা। যদিও সেবার দু’দলই দ্বিতীয় পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে।

এরপর ২০০২ সালে কোরিয়া-জাপান বিশ্বকাপে দ্বিতীয় বারের মতো গ্রুপ পর্বে দেখা হয় তাদের। আর্জেন্টিনার বাতিগোল খ্যাত গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতার একমাত্র গোলে জয় পায় আলবিসেলেস্তেরা। তবে ওই বিশ্বকাপে দু’দলের কেউই দ্বিতীয় পর্বে কোয়ালিফাই করতে পারেনি।

এরপর তৃতীয়বার ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বেই দেখা হয় দুই দলের। সেই ম্যাচে আর্জেন্টিনার হয়ে গোল করেন গ্যাব্রিয়েল হেইঞ্জ। নাইজেরিয়া গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিলেও আর্জেন্টিনা কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত যায়।

আর সবশেষ অর্থাৎ চতুর্থবারের মতো দেখা হয় ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপে। এবারও তাদের লড়াই হয় গ্রুপ পর্বে। তবে লড়াইটি হয়েছিল মূলত লিওনেল মেসি ও আহমেদ মুসার মধ্যে। দুজনই খেলছেন এবারের বিশ্বকাপে। আর্জেন্টিনার হয়ে লিওনেল মেসি দুটি ও মার্কাস রোহে একটি গোল করেন। আর নাইজেরিয়ার হয়ে আহমেদ মুসা দুটি গোল পরিশোধ করেন। ৩-২ গোলে হেরে ওই বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয় সুপার ঈগলরা। আর আর্জেন্টিনা ফাইনাল পর্যন্ত গিয়ে হয় রানার্সআপ।

বিশ্বকাপ সহ ফুটবলের আন্তর্জাতিক অঙ্গণে আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া সর্বমোট ৮টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে মুখোমুখি হয়। যেখানে আর্জেন্টিনা ৫ ম্যাচে জয়, ২ ম্যাচে পরাজয় ও ১ ম্যাচ ড্র করে।

দুই দলের সর্বশেষ সাক্ষাৎ হয় ২০১৭ সালের ১৪ নভেম্বর। ওই ম্যাচে মেসিবিহীন আর্জেন্টিনাকে ৪-২ গোলে পরাজিত করে নাইজেরিয়া।

বিশ্বকাপে আজকের ম্যাচটি আর্জেন্টিনার জন্য শুধু বাঁচা-মরার লড়াই নয়, লড়াইটা স্নায়ুযুদ্ধেরও। তাই মাথা ঠান্ডা রেখে এ ম্যাচটিতে যদি ভালো খেলতে পারেন মেসিরা, তবে তারাই যাবেন পরবর্তী রাউন্ডে।