দক্ষিণ সুরমায় সংঘর্ষে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাসহ নিহত ২

সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাসহ ২ জন নিহত দুইজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৩০ জন। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে।

আগের রাতে সিনিয়র-জুনির নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে মঙ্গলবার (০৬ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বরইকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি খায়রুল ফজল জানান।

নিহতরা হলেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি বরইকান্দির মাসুক মিয়া (৫০) ও একই এলাকার বাবুল মিয়া (৩৫)।

নিহত মাসুক মিয়া (বামে) ও বাবুল মিয়া

আহতদের মধ্যে সুজেল আহমদ, রুহেল মিয়া, সলিমুদ্দিন, তৈয়ব আলী, আবুল কাহের, নাজিম উদ্দিন, আহমদ হোসেন, তাজুল ইসলাম, ইলিয়াস ও দুলাল আহমদকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

জানা গেছে, দ্রুত গতিতে মোটরসাইকেল চালানো নিয়ে সোমবার রাতে কোম্পানীগঞ্জের তেলিখাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ আলফু মিয়ার ছেলের সঙ্গে বরইকান্দি এলাকায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি গৌছ মিয়ার ছেলের কথা কাটাকাটি হয়। এর জেরে রাতেই দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়। সকালে উভয় পক্ষের মধ্যে সংষর্ষ হলে অন্তত ২২ জন আহত হন।

ওসি খায়রুল ফজল বলেন, আহতদের উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে গৌছের সমর্থক মাসুক ও বাবুলকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

দুইজনই গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন ওসমানী হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আব্দুল মান্নান।