ড্র দিয়ে শেষ হলো বাংলাদেশের ‘লাওস’ মিশন

দীর্ঘদিনের ব্যবধানে আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফিরে হতাশ করেনি বাংলাদেশ। ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে লাওসের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে লাল-সবুজের দল। প্রথমার্ধে ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়লেও দ্বিতীয়ার্ধে জাফর ইকবাল ও আবু সুফিয়ান সুফিলের গোলে ম্যাচ ড্র করে বাংলাদেশ দল।

ঘরের মাঠে ম্যাচের প্রথমার্ধেই নিয়ন্ত্রণ নেয় লাওস। একাধিক গোল করার সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেননি বাংলাদেশ। একাধিক সুযোগ মিস করায় ম্যাচ চলে যায় লাওসের নিয়ন্ত্রণে। ম্যাচের ২৯ মিনিটে গোল করে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ডিফেন্ডার মামুন মিয়ার ঠিকমতো বল ক্লিয়ার করতে না পারায় লাওস স্ট্রাইকার কংমাথিলাথ পেয়ে যান বল। গোলরক্ষকের হাতের নিচ দিয়ে জালে জড়িয়ে দিয়ে লাওসকে ১-০ গোলে এগিয়ে দেন।

বিরতির খানিক আগে মাশুক মিয়ার করা ফাউলে পেনাল্টি পায় লাওস। কংমাথিলাথ সুযোগটা কাজে লাগাতে ভুল করেননি। প্রথমার্ধ শেষে স্কোর লাইন ২-০।

দ্বিতীয়ার্ধে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। অতিরিক্ত রক্ষণাত্মক লাওসের পোস্টে একের পর এক আক্রমন চালিয়ে দুটি গোলই শোধ করে দেয়। লাওসের রক্ষণভাগকে পরাস্ত করে ৮১ মিনিটে বক্সের ভেতরে বল পেয়ে ব্যবধান কমান ফরোয়ার্ড জাফর ইকবাল। ইনজুরি সময়ে বক্সের মধ্যে জটলায় বল পেয়ে দুর্দান্ত ভলিতে জালে জড়িয়ে দেন আরেক ফরোয়ার্ড সুফিল।

দীর্ঘ ১৭ মাস পর এই প্রথম বাংলাদেশ কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নামে। এর আগে ২০১৬ সালের অক্টোবরে শেষ বারের মতো মাঠে নামে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। ভুটানের বিপক্ষে থিম্পুতে সেই ম্যাচে ৩-১ গোলে হেরে যাওয়ার পর থেকেই অনেকটা নির্বাসনে ছিল বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল।

সেই ভুটান বিভিষীকা ভুলতে আয়োজনের কমতি রাখেনি বাংলাদেশ। নিয়োগ দেওয়া হয়েছে অস্ট্রেলীয় কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ডকে।ওর্ড তার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ‘নতুন’ একটি জাতীয় দল গড়ে তুলতে। জাতীয় দলের ফুটবল ক্যাম্প করা হয়েছে কাতারে। প্রস্তুতি ম্যাচ হয়েছে থাইল্যান্ডেও। এসবের সুফলই হলো আজকের ড্র। ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে লাওস। ১৯৭তম স্থানে বাংলাদেশ, আর স্বাগতিকরা আছে ১৮৩তম স্থানে।