টাঙ্গাইলে ভোটকেন্দ্রে সংঘর্ষ, যুবদল নেতা নিহত

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সাগরদিঘি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের ব্যালট পেপার ছিনতাইকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এসময় গুলিতে নিহত হয়েছেন মালেক মিয়া (৪৫) নামে এক যুবদল নেতা।

বৃহস্পতিবার (২৯ মার্চ) ভোর ৪টার দিকে ওই ইউনিয়নের সোনামুড়ি গুপ্তের বৃন্দাবন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

থানা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক আজিজুল হক জানান, নিহত মালেক মিয়া ওই ইউনিয়নের গুপ্ত বৃন্দাবন এলাকার নেছার আলীর ছেলে। তিনি ইউনিয়ন যুবদলের সহ-সভাপতি। তার ভাবি বুলবুলি বেগম এ ইউপি নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

জানা যায়, ভোরে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী হেকমত শিকদার ও তার লোকজন ওই ভোটকেন্দ্রে ব্যালট পেপার ছিনতাই করে সিল মেরে বাক্সে ভরছিলেন। এসময় স্থানীয় লোকজন ও বিএনপি সমর্থকরা বাধা দিতে গেলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। একপর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গুলি ছুড়লে মালেক মিয়া নিহত হন।

টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় জানান, ভোরে ওই কেন্দ্রে এক দল সন্ত্রাসী ব্যালট পেপার ছিনতাই করতে গেলে প্রিজাইডিং অফিসারের নিদের্শে পুলিশ গুলি চালায়। এতে মালেক মিয়া নামে একজন নিহত হন।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, ঘটনার পরপরই ওই কেন্দ্রটি স্থগিত করা হয়েছে।

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় ছয়টি ইউনিয়ন পরিষদ, টাঙ্গাইল সদরে একটি ও কালিহাতীতে একটি ইউনিয়ন এবং এলেঙ্গা পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।