ছাত্রীদের হলে ফিরিয়ে নিতে আল্টিমেটাম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হল থেকে বের করে দেয়া ছাত্রীদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হলে ফিরিয়ে নিতে কর্তৃপক্ষকে আল্টিমেটাম দিয়েছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। শুক্রবার (২০ এপ্রিল) বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে এই আল্টিমেটাম দেন সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক নূরুল হক নূর। একই সাথে হলটির প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবি করেন তিনি।

ওই ঘটনাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে একটি কলঙ্কজনক অধ্যায় হিসেবে বর্ণনা করে নূরুল হক নূর বলেন, ওই ঘটনার পর অধ্যাপক সাবিতা রেজওয়ানা রহমান প্রাধ্যক্ষ পদে থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছেন।

কবি সুফিয়া কামাল হল থেকে তিন ছাত্রীদের বের করে দেয়ার প্রতিবাদে শুক্রবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ থেকে শুরু হয়ে মিছিল চারুকলা, শাহবাগ, টিএসসি হয়ে নীলক্ষেত ঘুরে এসে আবার রাজু ভাস্কর্যের সামনে এসে শেষ হয়। এরপর সেখানে তারা বিক্ষোভ সমাবেশ করেন।

কোটা সংস্কারের আন্দোলনের মধ্যে ছাত্রলীগ নেত্রী ইফফাত জাহান এশাকে হেনস্তার ঘটনার তদন্তে কবি সুফিয়া কামাল হল কর্তৃপক্ষ বৃহস্পতিবার রাতে জিজ্ঞাসাবাদ করে ছাত্রীদের। এরই এক পর্যায়ে মধ্যরাতে তিন ছাত্রীকে হল থেকে বের করে দেয়া হয় বলে অভিযোগ উঠে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, যারা কোটা সংস্কার আন্দোলনে যুক্ত ছিলেন, তাদের ডেকে ডেকে তদন্তের নামে হয়রানি করছে হল কর্তৃপক্ষ। তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলছে, তিন ছাত্রীকে বের করে দেয়া হয়নি। অভিভাবকরা তাদের বুঝানোর জন্য হল থেকে নিয়ে গেছেন। ওই তিন ছাত্রী হলেন- অন্তি (পদার্থ), রিমি (পদার্থ), শারমিন (গণিত)।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান দাবি করেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কবি সুফিয়া কামাল হল থেকে মধ্যরাতে ছাত্রীদের বের করে দেয়া হয়নি, তাদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।