ছাতকে নৌ-পথে চাঁদাবাজি বন্ধে মাইকিং

ছাতকের চেলা নদীতে চলন্ত নৌকায় বিভিন্ন স্থানে অবৈধ চাঁদাবাজি বন্ধে দিনভর মাইকিং করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১২ এপ্রিল) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত নৌ-পথে ছাতক বাজার একতা বালু উত্তোলন ও সরবরাহকারী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির পক্ষে এই মাইকিং করা হয়।

শনিবার পহেলা বৈশাখ থেকে সকল প্রকার নৌকা ও বল্কহেড চালকদের সুরমা ও চেলা নদীতে চলন্ত অবস্থায় চাঁদা না দেয়ার নির্দেশনা দিয়ে মাইকিং করে তারা।

সম্প্রতি ছাতক বাজার ক্ষুদ্র বালু ব্যবসায়ীরা নৌ-পথে একাধিক স্থানে চাঁদাবাজির কারণে অতিষ্ঠ হয়ে আইন প্রয়োগকারী প্রতিষ্ঠানে অভিযোগ করেছিলেন। কিন্তু এর কোন সুফল হয়নি, চাঁদাবাজি চলেছে হর-হামেশাই। ফলে বাধ্য হয়েই বালি ব্যবসায়ীদের সংগঠনের পক্ষ থেকে হাইকোর্ট বিভাগে একটি রিট আবেদন করেন। ওই আবেদনের প্রেক্ষিতে সম্প্রতি হাইকোর্ট বিভাগের একটি বেঞ্চ চাঁদাবাজি বন্ধে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসককে একটি নির্দেশনা প্রদান করেন।

ছাতক বাজার একতা বালু উত্তোলন ও সরবরাহকারী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সভাপতি আব্দুস সত্তার ও সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন বলেন, বালু মহালের ইজারাদারগণ দীর্ঘদিন ধরে শর্ত ভঙ্গ করেই নিয়মিত ইজারা আদায় করছেন। ঘাট ছাড়াও নৌ-পথে কোথাও কোন প্রকার চাঁদা আদায় করা যাবে না, এরকম শর্ত দিয়েছেন সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক।