কোম্পানীগঞ্জে গণধর্ষণ মামলার তিন আসামী আটক

0
0

সিলেট শহর থেকে এক গৃহবধূকে ফুসলিয়ে কোম্পানীগঞ্জে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগে তিন ট্রাক চালককে গ্রেপ্তার করেছে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ।

আসামিরা হলেন সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার রতনপুর গ্রামের আনর আলীর ছেলে মোঃ মুহিবুর রহমান (৩৫), একই উপজেলার বড়গোল্লা গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে শাহীন মিয়া (৩৯) ও সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের শিলাকুড়ি গ্রামের নুর উদ্দিনের ছেলে মোঃ রুবেল মিয়া (২৫)।

বুধবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বম্ভরপুর থানা, সিলেটের এয়ারপোর্ট থানা ও কোম্পানীগঞ্জ থানা এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানায় নারী শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-১৮) ভুক্তভোগী নারী।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ভিকটিমের স্বামীর পরিচিত রুবেল মিয়ার সাথে মোবাইলে যোগাযোগ ছিল। সেই সুবাদে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ভিকটিমকে সিলেটের কোতয়ালী থানার মাছিমপুর থেকে ফুসলিয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানাধীন তেলিখাল রাস্তার পাশে জঙ্গলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত তিন ট্রাক চালক। এ ঘটনায় সেদিন রাতেই ভিকটিম বাদী হয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দিলে মামলা রেকর্ড করে আসামী গ্রেপ্তার অভিযানে নামে ওসি তদন্ত মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে একটি টিম।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মনিরুজ্জামান খান বলেন, ভিকটিমের অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথেই আসামীদের গ্রেপ্তারের অভিযান শুরু করে পুলিশ। পরে তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় সিলেট ও সুনামগঞ্জের বিভিন্ন স্থান থেকে আসামীদের গ্রেপ্তার করে মাননীয় আদালত জবানবন্দি গ্রহণ করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।