কৃষকদের আধুনিক প্রযুক্তির সুযোগ করে দেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন- দেশের কৃষকদের আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে চাষাবাদের সুযোগ করে দেয়া হবে। সে লক্ষে কৃষি অফিসের উদ্যোগে বছরব্যাপী বিভিন্ন আয়োজনের মাধ্যমে তাদেরকে সচেতন করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে বিনামূল্যে বীজ, সারসহ কৃষি উপকরণ বিতরণ করা হচ্ছে।

সোমবার সকালে গোলাপগঞ্জে সিলেট অঞ্চলের শস্যের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের কৃষি প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন ও আউশ প্রণোদনা কর্মসূচি উপলক্ষে বিনামূল্যে বীজ, রাসায়নিক ও নগদ অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।

তিনি বলেন- ২০০৯ সাল থেকে গোলাপগঞ্জে ৩৭ হাজার ৬শত ৫০জন কৃষককে সরকারের পক্ষ থেকে ডিজিটাল কার্ড বিতরণ করা হয়েছে। এ কার্ডের মাধ্যমে ১৯ হাজার ৮ শত ৫জন মাত্র ১০ টাকা দিয়ে ব্যাকংকে একাউন্ট খোলেছেন। খাদ্য উৎপাদনে বাংলালাদেশ পৃথিবীর যে কোন দেশ থেকে ভালো অবস্থানে রয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, দেশের বিদ্যুতায়ণ শতভাগ করা হবে। বিদ্যুৎ না থাকলে, কল-কারখানা, শিল্প-কারখানা, ইন্ডাস্ট্রি তৈরি হবে না, তাতে বেকারত্বের হার বৃদ্ধি পাবে। সেজন্য বিদ্যুতের উন্নয়নের কাজ সরকার অব্যাহত রেখেছে।

গোলাপগঞ্জে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরীফুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সমবায় অফিসার মো. জামাল মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. খায়রুল আমিন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, পৌরসভার মেয়র সিরাজুল জব্বার চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি রফিক আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন।

উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মামুনুর রহমান, আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি ডা. আব্দুর রহমান, উপজেল কৃষকলীগ সভাপতি ইসমাঈল উদ্দিন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে উপজেলা প্রায় ৯৭৫ জন কৃষকের মধ্যে বীজ, রাসায়নিক সার ও নগদ ৫শ’ টাকা করে বিতরণ করা হয়।