কামরানের সভায় ছাত্রলীগের দুপক্ষের সংঘর্ষ, আটক ২

নগরীর সারদা হলের সামনে কামরানের সমর্থনে আয়োজিত সভায় ছাত্রলীগের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে সভার চেয়ার ভাঙচুর করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় ২ কর্মীকে আটক করেছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। তবে তাৎক্ষণিকভাবে আটক কর্মীদের পরিচয় জানা যায় নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- সভা শুরুর পর একে একে আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখছিলেন। একপর্যায়ে সাবেক সংসদ সদস্য সৈয়দা জেবুন্নেসা হক বক্তব্য শুরু করলে সভামঞ্চের সামনে দুপক্ষের মধ্যে মারামারি শুরু হয়। এসময় অন্তত ২০/২৫টি চেয়ার ভাংচুর করা হয়। তবে কারো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

দুই জনকে আটক করে থানা নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ

জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রিড়া সম্পাদক অ্যাড. রনজিত সরকারকে বক্তব্যের সুযোগ না দেয়ায় তাঁর অনুসারী এবং কাউন্সিলর আজাদ অনুসারিদের মধ্যে এ মারামারির ঘটনা ঘটেছে বলে বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে।

এদিকে সংঘর্ষের জন্য কিছু সময়ের জন্য সভার কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেলে পরবর্তীতে সিনিয়র নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হলে আবার সভা শুরু হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।