কানাইঘাটে বিদ্যালয়ের সামনেই আবর্জনার স্তুপ

কানাইঘাট উপজেলার দিঘীরপাড় পুর্ব ইউপির সড়কের বাজারের দু‘টি কারখানা হতে ফেলা বর্জ্যের দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ সড়কের বাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা।

দীর্ঘদিন থেকে দুর্গন্ধময় পরিবেশে চলছে এ বিদ্যালয়ের পাঠদান। দিঘীরপাড় ইউনিয়নের গুরুত্বপুর্ণ জনবহুল স্থানে বিদ্যালয়টির অবস্থান হওয়া সত্ত্বেও এসব দিকে নজর দেবার কেউ নেই। একাধিকবার অিযোগ করলেও বন্ধ হচ্ছেনা আবর্জনা ফেলা।

সড়কের বাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ৬’শত শিক্ষার্থী। দিনের বেশীরভাগ সময় তাদেরকে এই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে কাটাতে হয়। বাজার সংলগ্ন দুটি কারখানা বিদ্যালয়টির রাস্তা সহ আশেপাশের এলাকায় বর্জ্য, পচাঁ আবর্জনা ফেলে রাখে। ফলে প্রতিনিয়ত এসব আর্বজনা ফেলার কারণে বিদ্যালয়ের সম্মূখ পাশে আর্বজনার স্তূপ হয়ে পচাঁ দুর্গন্ধময় পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। আর একারণে সবচেয়ে বেশি ভুগতে হচ্ছে এই বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিশুদের। একটি অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে লেখাপড়া করতে হচ্ছে তাদের।

বেশ কয়েকজন ছাত্রছাত্রীর অভিভাবক জানান, বিদ্যালয়ের দুর্গন্ধময় পরিবেশের কারণে বেশিরভাগ শিক্ষার্থীই পড়াশোনায় মনযোগ দিতে পারে না। এছাড়া নানা রোগ-ব্যাধীতে আক্রান্ত হবার প্রবণতাও অনেকটা বাড়ছে। অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ছে।

বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, বিদ্যালয় ও তার আশপাশে শুধু পচাঁ গন্ধ। তারা অনেক সময় খাতার কাগজ ছিড়ে নাকে চেপে ক্লাশ রুমে বসতে হয়। এ ছাড়াও তারা জানায়, বিশেষ করে একটি মিষ্টির কারখানা ও আইসক্রিম ফ্যাক্টরীর বর্জ্য আর্বজনা ফেলায় বিদ্যালয়ের পরিবেশ মারাত্মক দুষিত হচ্ছে। এমনকি এসব কারখানার পচাঁ আর্বজনা সরাতে বিদ্যালয় মুখী পাইপ লাগিয়ে দেওয়ায় অনবরত আর্বজনা পড়ে স্তুপে পরিণত হয়েছে। তারা এসব র্দুগন্ধময় পরিবেশ থেকে মুক্তি পেতে প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি জানান, কারখানার বর্জ্য ও ময়লা আবর্জনা স্কুলের পাশে না ফেলার জন্য বার বার অনুরোধ করা হলেও কোন প্রতিকার হয়নি।
এ ব্যাপারে কারখানার মালিকদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের পাওয়া যায়নি।