কলেজছাত্রী রেজমিন আক্তারের ঘাতকের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন

এম.সি কলেজের মেধাবী ছাত্রী রেজমিন আক্তারের হত্যায় ঘাতকের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন করেছে তার পরিবার ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মঙ্গলবার (৩ জুলাই) দুপুর ২টায় মদিনা মার্কেট পয়েন্টে ছাতক উন্নয়ন পরিষদ সিলেটের উদ্যোগে ছাতক উপজেলার জৈনপুর গ্রামের হাজী মোজাম্মিল আলীর মেয়ে রেজমিন হত্যায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, ‘রেজমিন আক্তারের ঘাতকের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড নিশ্চিত করতে হবে। আর যাতে যৌতুকের জন্য রেজমিনের মতো কোন শিক্ষার্থী হত্যাকান্ডের শিকার না হয় এজন্য জনমত গঠন করতে হবে।

দক্ষিণ ছাতক উন্নয়ন পরিষদ সিলেটের সভাপতি মোঃ মোজাহিদ আলীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এম লিকসন মিয়ার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন স্থায়ী সদস্য ও প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক সাদিকুর রহমান সাদিক, সাবেক সভাপতি মাহবুবুল আলম মুহিত, পিয়ার আলী মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক সায়েম আহমদ, নিহত রেজমিন এর পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন পিতা হাজী মজম্মিল আলী, বড়বোন তাজমিন বেগম, স্থায়ী পরিষদ সদস্য ফয়সল আহমদ, আব্দুল মালিক, সহ সভাপতি যথাক্রমে হাবিবুর রহমান হাবিব, সমর রেজা, শেখ খালিদুর রহমান সাঈদ, সোলেমান হোসেন চুন্নু, সাইফুর রহান সবুজ, যুগ্ম সম্পাদক যথাক্রমে নুরুল ইসলাম পাখি, ওলীউর রহমান আলেক, আবুল খয়ের, আবুল কালাম, আব্দুল খালিক, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সালেহ আহমদ, সহ প্রচার সম্পাদক নেছার আলম, মাছুম আহমদ, সালমান আহমদ, সিদ্দিক আহমদ, নাহিদ তালুকদার, আবুল লেইছ, আব্দুল আহাদ, আজিজুল ইসলাম, আলী আজম আলমগীর, আমিনুল ইসলাম, এনামুল হক, আতিকুর রহমান, এম এ বারেক, দীন মোহাম্মদ, আব্দুল হামিদ, আলী হায়দার, ইসলাম উদ্দিন।

মানবন্ধনে একাত্মতা পোষণ করে বক্তব্য রাখেন, সিলেট মহানগর মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, কলকলি উন্নয়ন সংস্থা সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সোবহান, টুকেরবাজারের ব্যবসায়ী যুবলীগ নেতা রেজাউর রহমান মোস্তাক, জিয়াপুর এলাকাবাসীর পক্ষে জিয়াপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি বদরুল ইসলাম বকুল, বিএনপি নেতা কয়েছ মিয়া, কবি আব্দুল কাইয়ুম, আনহার আলী, সুজন মিয়া, শহর আলী, জুবের আহমদ, জাহির আলী, মহরম আলী, পঞ্চগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী সালেহ আহমদ, শিবন মিয়া, শহীদুল ইসলাম, জহর আলম, শাহ আলম, রুহুল আমিন, মহিলা কলেজের তানিয়া, তাসলিমা, সুমাইয়া, সুলতানা, এম.সি কলেজের মনোয়ার হোসেন, সাইদুর রহমান, লিডিং ইউনিভার্সিটির ফয়সল আহমদ নোমান, জাহেদ আহমদ প্রমুখ।

মানববন্ধন শেষে মৌন মিছিল পরবর্তী সভায়, বক্তারা রেজমিন হত্যার বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন।