কক্সবাজারের মাতামুহুরী নদীতে নিখোঁজ ৫ কিশোরের লাশ

কক্সবাজারের মাতামুহুরি নদীতে গোসলে নেমে নিখোঁজ পাঁচ কিশোরের লাশই উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার (১৪ জুলাই) দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে চকরিয়ার চিরিঙ্গা ব্রিজ এলাকায় বালুচরে ফুটবল খেলা শেষে সন্ধ্যায় নদীতে গোসল করতে নেমে ডুবে যায় এই পাঁচ কিশোর।

নিহত শিক্ষার্থীরা হলো আমিনুল হোসাইন এমশাদ, মো. ফারহান বিন শওকত, মেহরাব হোসেন, তূর্য ভট্টাচার্য ও সায়ীদ জাওয়াদ অরবি। এদের মধ্যে মেহরাব চকরিয়া গ্রামার স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ও বাকিরা একই স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ সদস্য, চকরিয়া ফায়ার সার্ভিস ও চট্টগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দলের কর্মীরা কিশোরদের লাশ উদ্ধার করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে চকরিয়া গ্রামার স্কুলের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জানান, স্কুলের অর্ধবার্ষিকী পরীক্ষা শেষে ছাত্ররা মাতামুহুরি নদীর চরে ফুটবল খেলতে যায়। ফুটবল খেলা শেষে তারা নদীতে গোসল করতে নামলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বকতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান, ফুটবল খেলে মাতামুহুরিতে গোসলে নামে ছয় কিশোর। কিন্তু গোসলে নামার পরপরই স্রোতের টানে ভেসে যায় পাঁচ জন। তবে একজন সাঁতরে উপরে উঠে আসতে সক্ষম হয়।

এদিকে চকরিয়া ফায়ার সার্ভিসে ডুবুরী না থাকায় উদ্ধার অভিযান ব্যহত হয়। তবে শনিবার রাত পর্যন্ত তিন কিশোরের লাশ উদ্ধার করা গেলেও অন্য দুজনকে পাওয়া যাচ্ছিলো না। পরে চট্টগ্রাম থেকে ডুবুরীদলের সদস্যরা চকরিয়া পৌঁছে অভিযানে যোগ দিয়ে বাকি দুই কিশোরের লাশও উদ্ধার করেন।