ওসমানীনগরে বাস চাপায় দুই ছাত্রলীগ নেতা নিহত

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ওসমানীনগরে বিআরটিসি যাত্রীবাহী বাসের চাপায় দুই ছাত্রলীগ নেতা নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- খালেদ আহমদ (২৭) ও আবদুল মুহিব। রোববার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের দক্ষিণ গোয়ালাবাজার এলাকায় দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহত খালেদ গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের এওলাতৈল গ্রামের আওলাদ মিয়ার ছেলে এবং মুহিব একই ইউনিয়নের ব্রাহ্মণ গ্রামের মৃত মতি মিয়ার ছেলে। নিহত দু’জনই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সিলেটগামী বিআরটিসির যাত্রীবাহী বাস দক্ষিণ গোয়ালাবাজার এলাকায় বিপরীতমুখী একটি মোটরসাইকেলকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই খালেদ মারা যান। গুরুতর অবস্থায় মুহিবকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে সেও মারা যায়। সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিহত দুজনের ময়না তদন্ত শেষে রোববার দিবাগত রাত দেড়টায় তাদের নিজ নিজ বাড়িতে জানাযার নামাজ সম্পন্ন করা হয়।

এদিকে ঘটনার পরপর স্থানীয় ক্ষোব্ধ জনতা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে পুলিশ এ দুর্ঘটনায় ন্যায় বিচারের প্রতিশ্রুতি দিলে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। অবরোধকালে মহাসড়কের দুই দিকে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে।

ওসমানীনগর থানার অফিসার ইনজার্চ (ওসি) মোহাম্মদ সহিদ উল্যা দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

শোক প্রকাশ : এদিকে দুই ছাত্রলীগ নেতার মর্মান্তিক মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সাবেক সংসদ সদস্য ও সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, ওসমানীনগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান চৌধুরী নাজলু। তারা মরহুমদের রুহের মাগফিরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।