ওসমানীনগরে ছুরিকাঘাতে কলেজছাত্র আহত, আটক ১

সিলেটের ওসমানীনগরে ছুরিকাঘাতে মনজুর আহমদ চৌধুরী (২২) নামের এক কলেজ ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছেন। শনিবার (৯ জুন) মধ্যরাতে উপজেলার উমরপুর ইউপির মির্জা সহিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত মনজুর মির্জা সহিদপুর গ্রামের দেলোয়ার হোসেন চৌধুরীর ছেলে ও সিলেট সরকারী কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

ঘটনার পর রাতেই আটক করা হয় অভিযুক্ত ফয়ছলকে। মির্জা সহিদপুর গ্রাম থেকে শনিবার রাত তিনটার দিকে তাকে আটক করে পুলিশ। এ ব্যাপারে আহতের ভাই জাহাঙ্গীর চৌধুরী বাদী হয়ে ওসমানীনগর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-০৯। আসামী ফয়ছলকে আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার মধ্য রাতে উপজেলার উমরপুর ইউপির মির্জা সহিদপুর গ্রামের মনজুরের সাথে তার বাড়ির সামনে রাস্তায় একই গ্রামের পার্শ্ববতী বাড়ির তশিল মিয়ার ছেলে ফয়ছল আহমদের (২৮) সাথে রসিকতার এক পর্যায়ে দুজনের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ফয়ছল ক্ষুব্ধ হয়ে তার সাথে থাকা ছুরি দিয়ে মনজুরের বুকে ও পেটে উপর্যুপোরি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় মনজুরকে উদ্ধার করে রাতেই সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে ঘটনার পর ঘটনাকারী ফয়ছলকে গ্রামবাসী একটি ঘরে বন্দী করে রাখলে ওসমানীনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ফয়ছলকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ওসমানীনগর থানার ওসি মোহাম্মদ সহিদ উল্যা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় অভিযুক্ত ফয়ছলকে আটক করা হয়েছে। এব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।