ওসমানীতে ডাক্তার কর্তৃক রোগীর স্বজনকে ‘ধর্ষণ’

সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসক কর্তৃক রোগীর স্বজনকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় হাসপাতালে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

জানা গেছে, সোমবার (১৬ জুলাই) ভোর রাতে হাসপাতালের তৃতীয় তলার ৭ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। ভিকটিমকে হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করেছেন স্বজনরা।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, নগরের বনকলা পাড়া এলাকা থেকে আসা এক রোগীর সঙ্গে আসেন ওই নারী। ভিকটিম তার নানিকে নিয়ে ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ছিলেন। রাতে ফাইল দেখার কথা বলে ডাক্তার মাক্কামে মাহমুদ মাহী ওই মেয়েটিকে একই ফ্লোরে নিজের কক্ষে ডেকে নিয়ে যান এবং ধর্ষণ করেন। সকালে বাবা-মা হাসপাতালে আসার পর কিশোরী ধর্ষণের ঘটনা তাদেরকে জানায়।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাৎক্ষণিক পুলিশ ও আনসার সদস্যদের ওয়ার্ডের নিরাপত্তায় নিয়োজিত রাখা হয়। এ ঘটনায় সোমবার দুপুর পর্যন্ত ভিকটিমের স্বজনদের নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ প্রশাসনের মধ্যে বৈঠক চলছিল বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. দেবব্রত রায়।

এ ব্যাপারে জানতে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম মাহবুবুল হকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।