আসাদের শোভাযাত্রা শেষে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, গুরুতর আহত ২

আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সাবেক ছাত্রনেতা ও সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানিয়ে করা প্রথম মোটর শোভাযাত্রা শেষে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় তাঁর সমর্থকরা। সংঘর্ষে গুরুতর আহত হয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা মোস্তাক ও ফয়েজ। ঘটনার পর রক্তাক্ত অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

রোববার (৩ জুন) বিকাল ৪টায় সিলেটের ঐতিহ্যবাহী রেজিস্টারি মাঠ থেকে শুরু হয়ে প্রায় পাঁচ শতাধিক মোটর সাইকেলের মহড়া নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আম্বরখানা পয়েন্টে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রাটি শেষ করে যাওয়ার পথে নগরীর পাঠানটুলা এলাকায় আসাদ সমর্থিত ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে দুই ছাত্রলীগ নেতা গুরুতর জখম হন। আহতরা হলেন- সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সম্পাদক মোস্তাক আহমদ মোস্তাক ও মহানগর ছাত্রলীগের কর্মী ফয়জুর রহমান ফয়েজ।

হাসপাতাল সুত্র জানায়, সন্ধ্যা ৬টায় মোস্তাককে অর্থোপেডিক ও ফয়েজকে সার্জারি ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। ফয়েজের পিঠে ও মোস্তাকের হাতে গুরুতর আঘাত রয়েছে।

এ ব্যাপারে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমেদ সিলেট ভয়েসকে বলেন, সংঘর্ষের খবর শুনেছি। এটা তাদের ব্যক্তিগত বিরোধের জের ধরে হয়েছে।

মহানগর পুলিশের বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম স্বপন বলেন, শোডাউন শেষে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে দু’জন আহত হওয়ার খবর পেয়েছি। তবে কোন অভিযোগ এখনো (রোববার রাত সাড়ে ১১টা পর্যন্ত) পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।