আবারো পাথরকূপে মৃত্যু, আবারো লুকোনোর চেষ্টা

কোম্পানীগঞ্জের কালাইরাগে ৫ পাথর শ্রমিকের মৃত্যুর তিনদিনের মাথায় আবারও এক পাথর শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে কোম্পানীগঞ্জের শাহ আরেফিন টিলা এলাকায়।

প্রশাসনের কড়া নজরদারি ও টাস্কফোর্সের অভিযানের মধ্যেই পাথর উত্তোলন চলতে থাকা অবস্থায় বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে শাহ আরফিন টিলার একটি অবৈধ পাথরের গর্তের পাড় ধসে গুরুতর আহত হন দুই শ্রমিক। বেশি কিছুক্ষণ পর কাঁচা মিয়া (৬০) নামের এক শ্রমিকের মৃত্যু ঘটে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দিলীপ নাথ জানান, সকাল ১১টার দিকে জানতে পারি শাহ আরেফিন টিলায় অবৈধভাবে পাথর তুলতে গিয়ে দুই শ্রমিক আহত হয়েছেন। পরে তাদেরকে তড়িঘড়ি ছাতক নিয়ে যাওয়ার হলে সেখান থেকে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে পাঠানো হলে পথিমধ্যে মৃত্যু ঘটে কাঁচা মিয়ার।

তিনি জানান, এ ঘটনা পুলিশকে না জানিয়েই মৃতদেহ তার গ্রামের বাড়ি দক্ষিণ সুনামগঞ্জে নিয়ে যায় স্বজনেরা। পরে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশের সহযোগিতায় মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ঘটনা আহত আব্দুল গনি নামের একজন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

গত রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের সময় গর্ত ধসে একই উপজেলার কালাইরাগ এলাকায় ৫ শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং টাস্কফোর্সের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।