আদালতে নেয়া হয়নি খালেদাকে, পরবর্তী শুনানি ২২ এপ্রিল

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের শুনানিতে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়নি।

বৃহস্পতিবার (৫ এপ্রিল) রাজধানীর বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আখতারুজ্জামানের আদালতে শুনানির দিন ধার্য ছিল।

দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল আদালতকে জানান, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অসুস্থ। আরথ্রাইটিস রোগে আক্রান্ত তিনি। তার জন্য মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। ডাক্তার তাকে ওষুধ দিলেও তিনি খাচ্ছেন না। অসুস্থতার কারণে খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়নি।

আদালতে খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া তার জামিন বাড়ানোর আবেদন করেন। আদালত উভয় পক্ষের শুনানি শেষে পরবর্তী শুনানির জন্য ২২ এপ্রিল দিন ধার্য করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসানকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. আখতারুজ্জামান। এ মামলায় অন্য আসামি খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। রায়ের পর খালেদা জিয়াকে রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের কারাগারে নেওয়া হয়। বর্তমানে খালেদা জিয়া সেখানেই বন্দি রয়েছেন।