আজ শুরু ত্রিদেশীয় নিদাহাস ট্রফি

প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি ভারত-শ্রীলঙ্কা

আজ (মঙ্গলবার) কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে পর্দা উঠছে ত্রিদেশীয় নিদাহাস ট্রফির। সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের এই সিরিজের অপর দল বাংলাদেশ।

টুর্নামেন্টে তিন দলই খেলবে তাদের নিয়মিত অধিনায়ককে ছাড়া। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস চোটের কারণে খেলতে পারবেন না। তিন দলেরই দায়িত্ব ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কের কাঁধে।

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ভারত ও শ্রীলঙ্কা এখন পর্যন্ত ১৪ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে। এর মধ্যে দশ ম্যাচে জয় পেয়েছে ভারত। চার ম্যাচে জয় পেয়েছে শ্রীলঙ্কা।

ভারত এই সিরিজে বলতে গেলে দ্বিতীয় সারির দল পাঠিয়েছে। বিরাট কোহলি, মহেন্দ্র সিং ধোনি, জ্যাসপ্রীত বুমরাহদের বিশ্রামে রেখেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। নিদাহাস ট্রফিতে টিম ইন্ডিয়ার নেতৃত্বে রয়েছেন রোহিত শর্মা।

সিরিজে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ ৮ মার্চ। এদিন ভারতের মুখোমুখি হবে টাইগাররা। ১০ মার্চ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ১৪ মার্চ টাইগাররা নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে। ১৬ মার্চ লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে টাইগাররা।

এদিকে ম্যাচ শুরুর আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে এসে লঙ্কান কোচ হাথুরুসিংহে ভারতকেই এগিয়ে রাখলেন। এর অবশ্য কারণও আছে। ভারতের বিপক্ষে শেষ সাতটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচেই হেরেছে শ্রীলঙ্কা। ভারত আছে র‍্যাঙ্কিংয়ের তৃতীয় স্থানে, আর শ্রীলঙ্কা অষ্টম স্থানে।

সংবাদ সম্মেলনে হাথুরুসিংহে বলেছেন, আপনি যদি র‍্যাঙ্কিংয়ের দিকে তাকান, এই টুর্নামেন্টে ভারত সবার ওপরে। তারা সব সময় অন্য দলগুলোর চেয়ে এগিয়ে থেকে শুরু করে। ভারতের হয়ে যে-ই খেলুক না কেন, তারা এখনো খুবই শক্তিশালী দল।

তিনি আরো বলেন, আমাদের শুরুটা ভালো করতে হবে, কারণ সম্প্রতি দেশের মাটিতে আমরা ভালো করতে পারিনি। আর বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ সিরিজের কারণে তাদের চেয়ে আমরা মানসিকভাবে কিছুটা এগিয়ে থাকব।

১৮ মার্চ টুর্নামেন্টের ফাইনালের আগে প্রত্যেক দল খেলবে চারটি করে ম্যাচ।

শ্রীলঙ্কা একাদশ (সম্ভাব্য)
কুসল মেন্ডিস, দানুশকা গুনাথিলাকা, কুসল পেরেরা, উপুল থারাঙ্গা, দাসুন শানাকা, থিসারা পেরেরা, দিনেশ চান্দিমাল (অধিনায়ক, উইকেটরক্ষক), আকিলা ধনঞ্জয়া, আমিলা আপোনসো, সুরঙ্গা লাকমল, দুশমান্থ চামিরা।

ভারত একাদশ (সম্ভাব্য)
রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, সুরেশ রায়না, লোকেশ রাহুল, মনিশ পান্ডে, রিশাব পান্ত/দিনেশ কার্তিক (উইকেটরক্ষক), ওয়াশিংটন সুন্দর/দীপক হুদা, যুজবেন্দ্র চাহাল, শারদুল ঠাকুর, আক্সার প্যাটেল, জয়দেব উনাদকাত।