অ্যাতলেতিকোর হারে শিরোপার আরও কাছে মেসিরা

ম্যাচে ছিলো না বার্সেলোনা। তবু শেষ পর্যন্ত ফলাফলের উৎসবে মাতলো তারাই। রিয়াল সোসিয়েদাদের কাছে হেরে গিয়ে লা লিগার শিরোপা আরও ভালোভাবে বার্সেলোনার হাতে তুলে দিলো অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। গতরাতে অ্যাতলেতিকো ৩-০ গোলে হেরেছে সোসিয়েদাদের কাছে।

আর এই ম্যাচের পর এবারের লা লিগার শিরোপা একরকম নিশ্চিতই হয়ে গেছে কাতালানদের। তবু ৩৩তম রাউন্ডের খেলায় সেল্তা ভিগোর মাঠ থেকে ২-২ গোলে তারা ড্র করে ফেরায় শিরোপা জয়ের সময়টা একটু দীর্ঘ হবে বলেই ভাবা হচ্ছিল। কারণ দুইয়ে থাকা অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ জিতে গেলে পয়েন্ট ব্যবধান কিছুটা কমে আসতো। তবে ডিয়েগো সিমিওনের দল সেই ‘ভুল’ করেনি। সোসিয়েদাদের মাঠ থেকে বড় ব্যবধানে হেরে শিরোপার আরও কাছে নিয়ে গেছে বার্সেলোনাকে।

বদলি খেলোয়াড় হুয়ানমির জোড়া লক্ষ্যভেদের আগে উইলিয়াম হোসের গোল মিলিয়ে ‘রোজিব্লাঙ্কোদের’ ৩-০ গোলে হারিয়েছে সোসিয়েদাদ। ২৭ মিনিটে হোসের লক্ষ্যভেদে এগিয়ে গিয়ে বিরিতিতে গিয়েছিল তারা ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে। আর দ্বিতীয়ার্ধে ৮০ মিনিটের পর ইনজুরি টাইমে হুয়ানমি দুইবার জাল খুঁজে পেলে স্বাগতিকরা বড় জয় নিয়ে ছাড়ে মাঠ।

সোসিয়েদাদের এই জয়ে শিরোপা থেকে এখন মাত্র ৩ পয়েন্ট দূরে বার্সেলোনা। সামনের সপ্তাহান্তে দেপোর্তিভো লা করুণার বিপক্ষে জিতলেই টানা তৃতীয় লা লিগা ঘরে তুলবে এরনেস্তো ভালভারদের দল। আর তা হলে ন্যু ক্যাম্পের এল ক্লাসিকোর আগেই মেসিরা মাতবেন শিরোপা উৎসবে।

অ্যাতলেতিকোর হারে লাভ হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদেরও। এখন তারা দ্বিতীয় হয়েও শেষ করতে পারে লিগ মৌসুম। মাদ্রিদের ‘ছোটরা’ হেরে যাওয়ায় দুই দলের পয়েন্ট ব্যবধান এখন ৩। ৩৩ ম্যাচ শেষে অ্যাতলেতিকোর পয়েন্ট ৭১, আর রিয়ালের ৬৮। বাকি থাকা পাঁচ ম্যাচে এই ব্যবধান ঘুচিয়ে ফেলা অসম্ভব নয় রিয়ালের জন্য।