অভিন্ন নদী, অভিন্ন সংস্কৃতি : সিলেটে আজ সাংস্কৃতিক সমাবেশ

আজ ১৪ মার্চ আন্তর্জাতিক নদীকৃত্য দিবস (ইন্টারন্যাশনাল ডে অব অ্যাকশন ফর রিভারস)। বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)-এর পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক নদীকৃত্য দিবস-২০১৮ উপলক্ষে সিলেট বিভাগের চার জেলা সিলেট, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ ও মৌলভীবাজারে একাধিক কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।

আজ বুধবার (১৪ মার্চ) সন্ধ্যা ৬টায় সিলেটের কবি নজরুল অডিটোরিয়ামের মুক্তমঞ্চে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)-সিলেট শাখা, সুরমা রিভার ওয়াটারকিপার ও কথাকলি, সিলেট-এর যৌথ উদ্যোগে “অভিন্ন নদী, অভিন্ন সংস্কৃতি” শীর্ষক সাংস্কৃতিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এতে সুরমা-বরাক উপত্যকার সাংস্কৃতিক সংগঠকরা নদীরক্ষার সংগ্রামে সংহতি প্রকাশ করবেন।

বৃহস্পতিবার (১৫ মার্চ) বিকাল ৩টায় ‘হাওর অঞ্চলের নদ-নদীর নাব্যতা ফেরানো ও বাঁধের কাজে দূর্নীতি বন্ধে কার্যকর ব্যাবস্থা গ্রহণের দাবীতে’ সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুরে ‘যাদুকাটা নদী তীরে গণঅবস্থান কর্মসূচি’ পালন করা হবে। এছাড়া যাদুকাটা নদীতীরে রাতব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে রিভার ক্যাম্পিং ।

আন্তর্জাতিক নদীকৃত্য দিবস নদীর প্রতি জবাবদিহি করার দিন। দিবসটি মানুষকে নদী সম্পর্কে জানায়। প্রতি বছর নানান আয়োজনে বিশ্বের দেশে দেশে এই দিনে নদী রক্ষায় নতুন করে শপথ নেয় মানুষ। নদীর সাথে সংগঠিত অন্যায়ের প্রতিবাদ হয়। নদী সংগ্রামের অর্জিত সাফল্যে উৎসব হয়।

১৯৯৭ সালে ব্রাজিলে কুরিতিবা শহরে এক সমাবেশ থেকে নদীর প্রতি দায়বদ্ধতা মনে করিয়ে দেওয়ার লক্ষে এ দিবস পালনের সিদ্ধান্ত হয়। সেই সমাবেশে একত্র হয়েছিলেন বিভিন্ন দেশে বাঁধের বিরূপ প্রতিক্রিয়ার শিকার জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধিরা। তাইওয়ান, ব্রাজিল, চিলি, লেসোথো, আর্জেন্টিনা, থাইল্যান্ড, রাশিয়া, ফ্রান্স, সুইজারল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঐ সম্মেলনে অংশগ্রহণকারীরা ১৪ মার্চকে আন্তর্জাতিক নদীকৃত্য দিবস হিসেবে পালনের ঘোষণা দেন। এবার পালিত হচ্ছে ২০তম নদীকৃত্য দিবস

বাংলাদেশে নদীকৃত্য দিবস উদযাপন শুরু হয় ২০০৬ সাল থেকে। সিলেটে ২০০৮ সাল থেকে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এই দিবস নিয়মিতভাবে উদযাপন করে যাচ্ছে।